ঢাকা সোমবার, অক্টোবর ৩, ২০২২

Popular bangla online news portal

ফেরিঘাট ফাঁকা, যানজট নেই মহাসড়কেও


মোহাম্মদ সোহেল, সংবাদ সংলাপ
৭:০৩ - সোমবার, মে ২, ২০২২
ফেরিঘাট ফাঁকা, যানজট নেই মহাসড়কেও

ঈদযাত্রার শেষ মুহূর্তে সোমবার মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া এবং মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ফেরিঘাট এলাকায় নেই ঘরমুখো যাত্রী ও যানবাহনের কোনো চাপ নেই। কোনো ধরনের চাপ না থাকায় উভয়ঘাটে কয়েকটি ফেরি বসিয়ে রাখা হয়েছে।

ঈদযাত্রা শুরুর পর গত কয়েকদিন ধরেই পাটুরিয়া-শিমুলিয়া ফেরিঘাটে ঘরমুখী যাত্রী ও যানবাহনের চাপে যে ভোগান্তির সৃষ্টি হয়েছিল আজ কোথাও তার লেশমাত্র নেই। ঈদযাত্রার শেষ দিনে স্বাভাবিক সময়ের চেয়েও অনেক বেশি ফাঁকা রয়েছে। ঘাট পার হওয়ার জন্য যেসব যাচ্ছি এবং যানবাহন যাচ্ছে সঙ্গে সঙ্গেই তারা ফেরি পেয়ে যাচ্ছে। যাত্রী ও যানবাহনের চালকদের কোনো ধরনের ভোগান্তির মুখোমুখি হতে হচ্ছে না। পাটুরিয়া ফেরিঘাটে ২১টি ফেরি চলাচল করলেও যানবাহন ও যাত্রীর সংখ্যা কমে যাওয়ায় চারটি ফেরি বসিয়ে রাখা হয়েছে। সোমবার সকাল ১১টার দিকে পাটুরিয়া ফেরিঘাট এলাকা ফাঁকা ছিল।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা কার্যালয়ের উপমহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) শাহ মো. খালেদ নেওয়াজ ঘাট এলাকা পরিদর্শন করে বলেন, এবারের ঈদযাত্রায় দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের যাত্রী ও যানবাহনের চালকদের তেমন ভোগান্তি পোহাতে হয়নি। ভোগান্তি ছাড়াই সবাই ফেরি পার হচ্ছে। যাত্রী ও যানবাহনে চাপ না থাকায় চারটি ফেরি বসিয়ে রাখা হয়েছে। ১৭টি ফেরি যাত্রী ও যানবাহন পার করছে। ঈদযাত্রা শুরু হওয়ার পর থেকে প্রতিদিন প্রায় ১০ হাজার যানবাহন পাটুরিয়া ফেরি ঘাট দিয়ে পার হয়েছে।

এদিকে ঈদযাত্রার শেষ দিনে শিমুলিয়া ঘাটের চিত্র একেবারেই ভিন্ন রূপ ধারণ করেছে। যাত্রী ও যানবাহনের একদমই চাপ নেই। দশটি ফেরি চলাচল করছে। ঘাটে এসেই সবাই ফিরে পেয়ে যাচ্ছে এবং নির্বিঘ্নে পদ্মা পার হচ্ছে। ফেরির পাশাপাশি লঞ্চ, স্পিডবোটেও পদ্মা পাড়ি দিয়ে সবাই দ্রুত গন্তব্যে চলে যাচ্ছেন।

ঘাট কর্তৃপক্ষ জানায়, সকাল থেকে ১০টি ফেরি, ৮৫টি লঞ্চ ও ১৫৫টি স্পিডবোট চলাচল করছে।

ঈদযাত্রার শেষ দিনে মহাসড়কগুলোতে কোথাও কোন যানজট বা বিরম্বনা নেই। ঢাকা-টাঙাইল, ঢাকা-ময়মনসিংহ, ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট সড়কে স্বাভাবিক সময়ের মতই যানবাহন চলছে। শেষ মুহূর্তে যানবাহন চলাচলের যে আশঙ্কা করা হয়েছিল তা সড়কে একেবারেই অনুপস্থিত।