ঢাকা সোমবার, অক্টোবর ৩, ২০২২

Popular bangla online news portal

ভারতকে ৩-০ গোলে হারিয়ে সেমিতে বাংলাদেশ


ক্রীড়া সংলাপ
১৪:৩২ - মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২২
ভারতকে ৩-০ গোলে হারিয়ে সেমিতে বাংলাদেশ

নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশীপে আজ মঙ্গলবার ( ১৩ সেপ্টেম্বর) গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে শক্তিশালী ভারতকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। দলের হয়ে গোল তিনটি করেন সিরাত জাহান স্বপ্না, কৃষ্ণা রানী সরকার এবং স্বপ্না জাহান।

ভারতের বিপক্ষে এর আগে দশবারের মোকাবেলায় একবারও জয় পায়নি বাংলাদেশ। অন্যদিকে সাফ আসরে ছয়বার ভারতের মুখোমুখি হয়েছিলেন সাবিনারা। ২০১৬ সালে গোলশূন্য ড্র করে ত্রিরঙ্গাদের রুখে দেওয়া ম্যাচটিই সর্বোচ্চ সাফল্য লাল-সবুজের মেয়েদের। সাফের এই আসরেও শিরোপার প্রধান দাবীদার ভারত। গ্রুপ পর্বে পাকিস্তানকে ৩-০ গোলে হারালেও মালদ্বীপকে ৯-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে তারা।

নেপালের কাঠমান্ডুর দশরথ স্টেডিয়ামে শুরু থেকে আত্মবিশ্বাসী এক বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি ফুটে ওঠে। মারিয়া মান্ডা-মনিকা চাকমা-সানজিদা খাতুন মাঝ মাঠের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে মসৃণ করে দেন আক্রমণের পথ।

ম্যাচের সপ্তম মিনিটে ভারতের জালে বল জড়ালেও গোল পায়নি বাংলাদেশ। আঁখির পাস ধরে সানজিদা খাতুন আড়াআড়ি ক্রস বাড়িয়েছিলেন গোলমুখে। স্বপ্না ও কৃষ্ণা রানী সরকার ছুটেন হেডের জন্য। ভারতের গোলরক্ষক অদিতি চৌহান বল ধরতে যাওয়ার সময় কৃষ্ণার সঙ্গে সংঘর্ষে পড়ে যান। স্বপ্না টোকায় বল জালে জড়ালেও রেফারি বাজান ফাউলের বাঁশি।

ম্যাচের দ্বাদশ মিনিটে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। মাঝমাঠ থেকে বল পায়ে এগিয়ে আক্রমণের সুর বেঁধে দেন সাবিনা। তার বাড়ানো পাস ধরে কৃষ্ণা দিলেন বক্সের দিকে ছোটা সিরাত জাহান স্বপ্নাকে। বাঁ পায়ের নিখুঁত প্লেসিং শটে লক্ষ্যভেদ করেন ২১ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড। ২০১৬ সালে শিলিগুঁড়ির আসরের ফাইনালে ভারতের কাছে ৩-১ গোলে হেরে যাওয়া ম্যাচে লক্ষ্যভেদ করেছিলেন স্বপ্না। খানিক পর ব্যবধান দ্বিগুণের সুযোগ নষ্ট করেন তিনি। মাঝমাঠ থেকে মনিকা চাকমার লং পাস গতিতে ভারতের ডিফেন্ডারকে পেছনে ফেলে নাগাল পেলেও ঠিকঠাক শট নিতে পারেননি স্বপ্না। তার দুর্বল শট পোস্ট ছেড়ে বেরিয়ে আসা অদিতির পায়ে লেগে প্রতিহত হয়।

শুরুর ২০ মিনিটে অধিকাংশ সময়ই খেলা হয় ভারতের অর্ধে। গোল শোধে মরিয়া চেষ্টা করলেও সান্ধিয়া রাঙ্গানাথন, অঞ্জু তামাংদের প্রচেষ্টা কখনও জমে যায় আত্মবিশ্বাসী রুপনা চাকমার গ্লাভসে, কখনও যায় ক্রসবারের উপর দিয়ে উড়ে। দুই মিনিট পর কৃষ্ণা রানী সরকারের দারুণ গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে বাংলাদেশ। শিউলি আজিমের থ্রো নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আলতো টোকায় স্বপ্নাকে বল বাড়িয়ে কৃষ্ণা বক্সেই সুবিধাজনক জায়গা খুঁজে নেন। স্বপ্নার কাছ থেকে ফিরতি পাস পেয়ে মুগ্ধতা ছড়ানো নিখুঁত শটে কাছের পোস্ট দিয়ে জাল খুঁজে নেন কৃষ্ণা। ২০২০ সালে অলিম্পিক বাছাইয়ের পর আবারও ভারতের জালে গোল পেলেন ২১ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড। চলতি সাফেও খুললেন গোলের খাতা। বাংলাদেশের হয়ে তৃতীয় গোলটি করেন স্বপ্না জাহান।