ঢাকা সোমবার, অক্টোবর ৩, ২০২২

Popular bangla online news portal

“ভাইয়ের বউকে ভোট না দিলে দেখে নেওয়ার হুমকি” পিরোজপুর পৌর মেয়রের


সংলাপ প্রতিনিধি
১২:৪৮ - বুধবার, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২২
“ভাইয়ের বউকে ভোট না দিলে দেখে নেওয়ার হুমকি” পিরোজপুর পৌর মেয়রের

আওয়ামী লীগ সমর্থীত প্রার্থীকে ভোট না দিলে পায়ে হেঁটে যেতে পারবেন না বলে ভোটারদের হুশিয়ারি দিয়েছেন পিরোজপুর পৌরসভার মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতির দায়িত্বেও রয়েছেন। গত রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা সংসদে অনুষ্ঠিত বর্ধিত সভায় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ সমর্থীত প্রার্থী সালমা রহমান হ্যাপির পক্ষে প্রচারণায় এই হুমকি দেন। সুত্র-বিডি২৪লাইভ

তার এই বক্তব্যের পর এলাকায় ও সোস্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড় সৃষ্টি হয়েছে। তবে এই বক্তব্যের বিষয়টি স্বীকার করেছেন মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক। তিনি দাবি করেছেন, হুমকি নয় দলের নেতাকর্মীদের প্রতি অধিকারের স্থান থেকে এই বক্তব্য দিয়েছেন।

অন্যদিকে, বক্তব্যের পরে নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছেন ভোটাররা। স্যোসাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায় পৌর মেয়র বলছেন, সালমা রহমানের ভাই একজন শহীদ বীরমুক্তিযোদ্ধা। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু মারা যাওয়ার পরে তার বাবা সরকারি চাকরি ছেড়ে দেন। কারণ, তিনি জালিম সরকারের অধীনে চাকরি করবেন না। সেই মানুষটির মেয়ে এবং আমাদের পরিবারের পূত্রবধূ।

বক্তব্যের বিষয়ে পৌর মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হাবিবুর রহমান মালেক জানান, পায়ে হেঁটে যেতে পারবে না কথা আমি আমার দলের নেতাকর্মীদের বলেছি অধিকারের জায়গা থেকে। কারণ যারা আওয়ামী লীগ করেন আর আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীকে ভোট দেবেন না, তাহলে তো তিনি নেতৃত্ব মানেন না। আমি অন্য কোনো দলের কাউকে এসব কথা বলিনি। অন্য দলের লোকদের বলার অধিকার আমার নেই। তবে এই বক্তব্যের কারনে শান্তিপূর্ন ভাবে ভোটাররা ভোট দিতে পারবেন না বলে মনে করছেন অনেকেই।

খোঁজ নিয়ে জানা যায় অবৈধ সম্পদের মালিকানা এবং পৌরসভায় কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগ প্রশ্নে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে হাবিবুর রহমান মালেক এবং তার স্ত্রী নিলা রহমানের বিরুদ্ধে এ দুদক দুইটি মামলা করেছে এবছরের ১৭ মার্চ। দলের নেতাকর্মীদের এভাবে দুদকের অভিযুক্ত একজন নেতা সরাসরি কিভাবে হুমকি দেয় এ নিয়ে এলাকায় আলোচনা ঝড় চলছে।