ঢাকা শুক্রবার, ডিসেম্বর ৯, ২০২২

Popular bangla online news portal

মেসির শেষ বিশ্বকাপ মিশন


ক্রীড়া সংলাপ
৯:৩৪ - মঙ্গলবার, নভেম্বর ২২, ২০২২
মেসির শেষ বিশ্বকাপ মিশন

কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আজ মাঠে নামছে লাতিন আমেরিকার দেশ আর্জেন্টিনা। দলটির নেতৃত্বে রয়েছেন পিএসজি ফরোয়ার্ড লিওনেল মেসি। আগেই ঘোষণা দিয়েছিলেন কাতার বিশ্বকাপই তার শেষ বিশ্বকাপ। তাই নিজের শেষ বিশ্বকাপ মিশনে নিজেকে রাঙাতে চান এই তারকা। লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়ামে আজ বিকাল ৪টায় সৌদি আরবের মুখোমুখি হবে তারা।

শেষ বিশ্বকাপ মিশনে নামার আগে বেশ কিছু রেকর্ডের সামনে রয়েছেন এই তারকা। আজ খেলতে নামলেই সর্বোচ্চ পাঁচটি বিশ্বকাপ খেলা ক্লাবের সদস্য হবেন মেসি। এর আগে ২০০৬, ২০১০, ২০১৪ ও ২০১৮ সালের বিশ্বকাপে খেলেছেন তিনি। মেসির আগে এই ক্লাবের সদস্য ছিলেন চারজন। মেক্সিকোর কিংবদন্তি গোলরক্ষক আন্তোনিও কারবাহাল, ডিফেন্ডার রাফায়েল মার্কেজ, ইতালির গোলরক্ষক জিনুইয়ালজি বুফন এবং জার্মানির মিডফিল্ডার লোথার ম্যাথিউস। এবার সর্বোচ্চ পাঁচটি বিশ্বকাপ খেলার তালিকায় নাম উঠবে মেসির। মেসির সঙ্গে এই তালিকায় আরো যোগ দিতে পারেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, আন্দ্রেস গুয়ার্দাদো এবং গিয়ার্মো ওচোয়া।

এ পর্যন্ত চার বিশ্বকাপে দলের জার্সি গায়ে মাঠে নেমেছেন মেসি। একবার ফাইনালেও উঠেছিলেন। ২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনালে জার্মানির বিপক্ষে যোগ করা সময়ের শেষ মুহূর্তে গোল খেয়ে শিরোপা হাতছাড়া করে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। তবে ব্রাজিলকে তাদের মাটিতেই হারিয়ে কোপা আমেরিকা জয়ের মধ্য দিয়ে সেই অপূর্ণতা ঘুচে যায়। একই সঙ্গে ২৮ বছরের শিরোপা খরা কাটে আর্জেন্টিনার।

২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট ১৮ বছর বয়সে হাঙ্গেরির বিপক্ষে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে মেসির অভিষেক হয়। জাতীয় দলের হয়ে মেসি বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করেন ২০০৬, ২০১০, ২০১৪ ও ২০১৮ সালে। বিশ্বকাপে তার গোল সংখ্যা ৬টি। বর্তমানে খেলেন ফ্রান্সের ক্লাব পিএসজিতে। জাতীয় দলে এই তারকার জার্সি নাম্বার ১০। জাতীয় দলের হয়ে করেছেন ১৬৫ ম্যাচে ৯১টি।

এছাড়া ফুটবল বিশ্বকাপের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ২৫টি ম্যাচ খেলেছেন জার্মানির ম্যাথিউস। এখন পর্যন্ত মেসি খেলেছেন ১৯টি। আর ৭টি ম্যাচ খেললেই ম্যাথিউসকে টপকে বিশ্ব রেকর্ড গড়বেন মেসি। বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার হয়ে সবচেয়ে বেশি ২১টি ম্যাচ খেলেছেন কিংবদন্তি ডিয়াগো ম্যারাডোনা। এখন পর্যন্ত ১৯টি ম্যাচ আছে মেসির। এবারের আসরের গ্রুপপর্বে ৩টি ম্যাচ খেললে মেসির ম্যাচ সংখ্যা হবে ২২টি। তাতে ম্যারাডোনাকে পেছনে ফেলবেন মেসি। বিশ্বকাপের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি জয়ের স্বাদ পেয়েছেন জার্মানির সাবেক স্ট্রাইকার মিরোস্লাভ ক্লোসা। চারটি বিশ্বকাপে ১৭টি জয় আছে তার। বিশ্বকাপে মেসির জয় ১২টি। এবারের আসরে গ্রুপপর্ব থেকে সেমিফাইনাল পর্যন্ত সব ম্যাচ জিতলেই ক্লোসাকে পেছনে ফেলবেন মেসি।

সেমিতে হারলেও সমস্যা নেই। তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে জয় পেলেই হবে মেসির। অধিনায়ক হিসেবে বিশ্বকাপের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ১৭ ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন মেক্সিকোর সাবেক ডিফেন্ডার রাফায়েল মার্কেজ। এই তালিকার দ্বিতীয় স্থানে আছেন আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ডিয়েগো ম্যারাডোনা। ১৬ ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি। বিশ্বকাপ মঞ্চে এ পর্যন্ত ১২ ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে নেতৃত্ব দিয়েছেন মেসি। এবারের বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা সেমিফাইনালে উঠলেই মার্কেজকে ছাড়িয়ে যাবেন মেসি।

আজ সৌদি আরবের বিপক্ষে জিততে মরিয়া হয়ে আছে মেসি বাহিনী। তবে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে এর আগে কখনো আর্জেন্টিনা-সৌদি মুখোমুখি হয়নি। কিন্তু এই পর্যন্ত এশিয়ান প্রতিপক্ষের বিপক্ষে চারটি ম্যাচের দুটিতে জয় ও দুটিতে ড্র করেছে স্কালোনির শিষ্যরা। তাছাড়া বিশ্বকাপের আগে লাতিন অঞ্চলের বাছাইপর্বের কোনো পরাজয়ের স্বাদ পায়নি লিওনেল মেসির দল।

সব প্রতিযোগিতায় শেষ পাঁচটি ম্যাচে তারা জয়ী হয়েছে। এখন পর্যন্ত টানা ৩৬ ম্যাচে অপরাজিত মেসি-ডি মারিয়ারা। বিশ্বকাপের আগে তারা হারিয়েছে দেশের অন্যতম ফুটবল তারকা ম্যারাডোনাকে। এবার ফুটবল ঈশ্বর প্রয়াত ডিয়েগো ম্যারাডোনার আর্শীবাদ ছাড়া বিশ্বকাপ মঞ্চে খেলবেন মেসি-ডি মারিয়ারা। ম্যারাডোনা ৬০ বছর বয়সে এই পৃথিবী ছেড়ে যাওয়ায় ভক্তকুল ভীষণ মর্মাহত। তার অনুপস্থিতি সবাই অনুভব করবেন। বিশ্বকাপ মঞ্চে সৌদিদের ছাড় দিতে নারাজ মেসি-ডি মারিয়ারা।

বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতি ম্যাচেও স্কালোনির শিষ্যরা দাপটে খেলেছে। তারা সংযুক্ত আরব আমিরাতকে ৫-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে। এই জয় তাদের অনুপ্রেরণা জোগাবে এমনটাই প্রত্যাশা আজেটিনার কোচ স্কালোনির।

ফুটবল বিশ্বের অন্যতম পরাশক্তি আর্জেন্টিনা। ফিফা বিশ্বকাপের ইতিহাসে তারা দুইবার বিশ্বকাপ জয় করে। ১৯৭৮ সালে নেদারল্যান্ডসকে ৩-১ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো শিরোপা ঘরে তুলেছিল দলটি। আর্জেন্টিনা তাদের দ্বিতীয় শিরোপা ঘরে তোলে ১৯৮৬ সালে। প্রতিযোগিতার ফাইনালে পশ্চিম জার্মানিকে ৩-২ গোলে হারায় তারা। এবার বিশ্বকাপেও মেসিকে নিয়ে তাদের প্রত্যাশার শেষ নেই। আজ সৌদি আরবের বিপক্ষে মাঠে নামার পর ২৬ নভেম্বর রাত একটায় মেক্সিকো এবং ৩০ নভেম্বর একই সময়ে পোল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে আর্জেন্টিনা।

লিওনেল মেসি
জন্ম : ২৪ জুন ১৯৮৭
জন্মস্থান : রোসারিও, আর্জেন্টিনা
উচ্চতা : ৫ ফুট ৭ ইঞ্চি
স্ত্রী : আন্তলেনা রোকুজ্জো
বিশ্বকাপে :
অংশগ্রহণ ২০০৬, ২০১০
২০১৪ ও ২০১৮
বিশ্বকাপে গোল : ৬টি
বর্তমান ক্লাব : পিএসজি, ফ্রান্স
জাতীয় দল : আজেন্টিনা (জার্সি নম্বর- ১০)
জাতীয় দলের : ১৬৫ ম্যাচে ৯১টি গোল হয়।